বরেন্দ্রজুড়ে আমবাগানে মুকুল, ছড়াচ্ছে ঘ্রাণ

73
বরেন্দ্রজুড়ে আমবাগানে মুকুল, ছড়াচ্ছে ঘ্রাণ

মিজানুর রহমান : হাড় কাঁপানো শীত বিলিয়ে সদ্যই বিদায় নিয়েছে পৌষ। বাংলা পঞ্জিকায় অভিষিক্ত হয়েছে বহু আচার-অনুষ্ঠান আর সৃষ্টির মাস মাঘ। বিশেষত রাজশাহীর বরেন্দ্র অঞ্চলে মানুষের কাছে কাঙ্খিত একটি মৌসুম। সাধারণত এই মাসের শেষেই আম গাছে মুকুল আসে। আম প্রধান এই অঞ্চলের মানুষের সময় কাটে আম গাছ ও মুকুলের যত্নআত্তি নিয়েই।

কিন্তু খানিকটা হলেও ব্যত্যয় ঘটেছে এবার। মাঘের শুরুতেই তানোর উপজেলাসহ রাজশাহী অঞ্চলের অনেক আম গাছে আসতে শুরু করেছে আগাম মুকুল। পৌষের শেষেই আগাম এই মুকুলে আম চাষিদের মনে আশার প্রদীপ জ্বলে উঠেছে।

তবে আগাম মুকুল দেখে আম চাষিরা অনেকে খুশি হলেও কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, শীত বিদায় নেওয়ার আগেই আমের মুকুল আসা ভালো নয়। এখন ঘন কুয়াশা পড়লে গাছে আগে ভাগে আসা মুকুল ক্ষতিগ্রস্ত হবে, যা ফলনেও প্রভাব ফেলবে।

বরেন্দ্রজুড়ে আমবাগানে মুকুল, ছড়াচ্ছে ঘ্রাণ

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) তানোরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বেশ কিছু আম গাছে প্রচুর মুকুল এসেছে। সোনারাঙা সেই মুকুলের সৌরভ ছড়িয়ে পড়েছে বাতাসে।

আমের মুকুলে তাই এখন মৌমাছির গুঞ্জন। মুকুলের মিষ্টি ঘ্রাণ যেন জাদুর মতো কাছে টানছে তাদের। গাছের প্রতিটি শাখা-প্রশাখায় তাই চলছে ভ্রমরের সুর ব্যঞ্জনা। শীতে স্নিগ্ধতার মধ্যেই শোভা ছড়াচ্ছে স্বার্ণালি মুকুল।

বছর ঘুরে আবারও তাই ব্যাকুল হয়ে উঠেছে আমপ্রেমীদের মন। আমের এ অঞ্চলে মানুষের কাছে ঋতু বৈচিত্র্যে এবারের শীত বিদায়ী মাঘ মাস ধরা দিয়েছে এভাবেই। তাই উপজেলাবাসীর চলার পথে ঘুরে ফিরে আমগাছের মগডালেই উঠছে পথচারীর চোখ। সবখানে চলছে কেবলই গাছের পরিচর্যা।

তানোর পৌর এলাকার আম ব্যবসায়ী বাবুল আহম্মেদ বলেন, শীত আর কুয়াশার কারণে সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। প্রকৃতিতেও এসেছে ভিন্নতা। তাই মাঘের শেষে ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝিতে আমের মুকুল আসার কথা থাকলেও এবার প্রায় এক মাস আগে মধ্য জানুয়ারিতেই কিছু গাছে মুকুল এসেছে।

বরেন্দ্রজুড়ে আমবাগানে মুকুল, ছড়াচ্ছে ঘ্রাণ

এদিকে, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্যমতে, গত বছর তানোর উপজেলায় আমের বাগান ছিল প্রায় ৩৬৫ হেক্টরে জমিতে। এ বছর বাগানের পরিমাণ কিছুটা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ নিয়ে তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম প্রতিবেদককে জানান, গেলো দুই সপ্তাহ থেকে গাছে আমের মুকুল আসতে শুরু করেছে। মূলত আবহাওয়াগত কারণে দেশীয় জাতের গাছে এই আগাম মুকুল আসতে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, এ সময় বাগানে বসবাস করা হপার বা ফুদকী পোকা যারা মুকুলের ক্ষতি করে। এ পোকা দমনে বালইনাশক স্প্রে করতে হবে। সেই সঙ্গে সালফার জাতীয় ছত্রাক নাসকও স্প্রে করার পরামর্শ দেন ওই কর্মকর্তা।

আপনার মন্তব্য