বিয়েতে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীকে অপহরণ, প্রেমিক গ্রেফতার

17
বিয়েতে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীকে অপহরণ, প্রেমিক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, মোহনপুর:  বিয়েতে রাজি না হওয়ায় রাজশাহীর মোহনপুর থেকে অপহরণের শিকার হয়েছে কলেজছাত্রী (১৭)।

কথিত প্রেমিকই তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছিলো। পথে জেলার তানোর উপজেলার কাশেম বাজার থেকে স্থানীয়রা ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করেন।

সোমবারের এই ঘটনায় রাতেই ওই ছাত্রীর প্রেমিক আলী হাসানকে (২০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

এর আগে ওই কলেজছাত্রী বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেথানায়। তাতে আসামী করা হয়েছে কথিত প্রেমিকসহ তিন যুবককে। 

প্রেমিক আলী হাসান নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার কামারপুর গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে।

তানোরের তালন্দ ললিত মোহন ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী  তিনি।

সোমবার রাতে তালন্দ ছাত্রাবাস থেকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী মোহনপুর উপজেলার ভীমপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি উপজেলার শ্যামপুর হাট ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

শারিরীক পরীক্ষার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

মামলার অন্য দুই আসামী হলো-তালন্দ গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে সুমন (২১), নিয়ামতপুর উপজেলার চকপাড়া গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে জুয়েল রানা (২০)। এরা দুজনই  আলী হাসানের বন্ধু।

মোহনপুর থানার ওসি মোস্তাক আহম্মেদ জানান, শ্যামপুর হাট মাঠে মেলায় ওই ছাত্রীর সাথে আলী হাসানের তিনমাস পূর্বে পরিচয় হয়। 

এরপর থেকে মোবাইলে সখ্যতা জমে দুজনের।  ধীরে ধীরে তা প্রেমে রুপ নেয়।

ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন প্রেমিক আলী হাসান। তাতে রাজি হননি ওই ছাত্রী। 

রোববার সকাল ৯ টার সময় শ্যামপুর হাট ডিগ্রী কলেজের সামনে থেকে দুই বন্ধুর সহায়তায় ওই ছাত্রীকে অটোরিকশায় তুলে নিয়ে যান আলী হাসান।

তানোর উপজেলার কাশেম বাজার থেকে স্থানীয়রা কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করেন। ওই সময় কৌশলে অপহরণকারিরা পালিয়ে যায়। পরে অভিযান চালিয়ে মুল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। অন্য দুজনকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মন্তব্য