রাজশাহীতে মাদকবিরোধী শক্তিশালী নেওয়ার্ক গঠনের উদ্যোগ

18
রাজশাহীতে মাদকবিরোধী শক্তিশালী নেওয়ার্ক গঠনের উদ্যোগ

স্টাফ রিপোর্টার: মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে রাজশাহীতে বড় পরিসরে একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক গ্রুপ গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বেসরকারি সংস্থা লাইট হাউস কনসোর্টিয়াম-যৌথ অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে লাইটহাউস, ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন, আসক্ত পূনর্বাসনসংস্থা (আপস)-রাজশাহী এবং নারী ও শিশুকল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে এই নেটওয়ার্কে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার প্রতিনিধিরা থাকবেন। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অবহিতকারণ এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

লাইট হাউস কনসোর্টিয়াম-যৌথ অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে লাইটহাউস, ঢাকা আহ্ছানিয়ামিশন, আসক্ত পূনর্বাসনসংস্থা (আপস)-রাজশাহী এবং নারী ও শিশুকল্যাণ সোসাইটির আয়োজনে মাদকবিরোধী কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ইউএসএইড এবং ইউকেএইড-এর আর্থিক সহায়তায় কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনালের বাস্তবায়নাধীন প্রোমোটিং এ্যাডভোকেসি এন্ড রাইটস (পার) কর্মসূচির আওতায় রাজশাহী ও নাটোর জেলায় ‘ড্রাগ অ্যাবিউজ রেসিসটেন্ট অ্যান্ড আন্ডারস্ট্যান্ডিং (দাড়াও)’ নামে এই প্রকল্পটি মাঠপর্যায়ে বাস্তবায়ন করা হবে।

অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. পারভেজ রায়হান। অতিথি ছিলেন রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. মো. এনামুল হক, রাজশাহী বিভাগীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. জাফরুল্লাহ কাজল, উপ-পরিচালক মো. লুৎফর রহমান, রাজশাহী জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. নাসির উদ্দিন ও দৈনিক সোনারদেশ সম্পাদক মো. আকবারুল হাসান মিল্লাত।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মো. পারভেজ রায়হান বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স গ্রহণ করেছে। মাদকের ভয়াল থাবা থেকে সমাজকে রক্ষা করার জন্য সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য নিশ্চিতকরার লক্ষ্যে একটি সুন্দর সমাজ বিনির্মাণ করতে হবে।

এছাড়াও অতিথি হিসেবে কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল এর চীফ অব পার্টি মিস কেলি জোনস মাদকবিরোধী কর্মসূচীর বিভিন্ন দিক তুলে ধরে কার্যক্রম বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

লাইট হাউজের নির্বাহী প্রধান মো.হারুন-অর-রশিদ বলেন, মাদকবিরোধী কার্যক্রমটিকে আমরা সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করতে চাই। তারই লক্ষ্যে আমাদের আজকের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। এই সামাজিক আন্দোলনে আমরা সমাজের সকল স্তরের নাগরিকদের যুক্ত করে মাদকমুক্ত সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে পারবো বলে বিশ্বাস করি। সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়নে সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করবে।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন আপস’র নির্বাহী পরিচালক মো. আবুল বাশার পল্টু। লাইট হাউজের নির্বাহী প্রধান মো.হারুন-অর-রশিদ সভাটি সঞ্চালনা করেন এবং সমাপনী বক্তব্য রাখেন।দাড়াও কর্মসূচীর ব্যবস্থাপক এসময় এস.এম. মনোয়ার হোসেন প্রকল্পের তথ্য চিত্র তুলে ধরেন। অন্যদিকে আপসের পক্ষে তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন প্রোগ্রাম ম্যানেজার এসএম আব্দুল্লাহ আল রেজা।

অনুষ্ঠানে জনপ্রতিনিধিরা ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য