রাজশাহীতে মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরামের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সনদ প্রদান

0
রাজশাহীতে মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরামের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সনদ প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে বাংলাদেশ মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) এর আয়োজনে “মানবাধিকার প্রতিবেদন তৈরীতে সাংবাদিকদের সক্ষমতা বৃদ্ধি” বিষয়ক দিনব্যপি প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) নগরীর এনজিও ফোরাম অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ ইউএনডিপি’র মানবাধিকার কর্মসূচির অর্থায়নে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী। এর আগে কর্মশালাটির উদ্বোধন করেন রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের রাজশাহী ব্যুরো প্রধান কাজী শাহেদ।

সমাপনী অনুষ্ঠানে এমপি আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরি বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে যত সাংবাদিক দেখছি, ৫০ বছর আগে এত সাংবাদিক ছিল না। কিন্তু সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতা ছিল। এখন এত সাংবাদিক হয়েছে যে এই বস্তুনিষ্ঠতা ধরে রাখতে পারছে না।

কারণ দেশের ভালো তুলে না ধরে শুধু নেগেটিভ বিষয়গুলো তুলে ধরে।ভালো কাজের মূল্যায়ন সংবাদে তুলে ধরা হয় না। আর তরুণ সাংবাদিকদের এসব সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, এখনই সময় এসেছে মানবাধিকার ঠিক রেখে সাংবাদিকতা করার। সাংবাদিকতা করতে গিয়ে যেন মানবাধিকার লঙ্ঘন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সত্য-মিথ্যা যাচাই করে সত্য সংবাদ তুলে ধরতে সাংবাকিদের আহ্বান জানান তিনি।

এই কর্মশালার প্রধান আলোচক ছিলেন বিএমএসএফ-এর মহাসচিব খায়রুজ্জামান কামাল। এ সময় মানবাধিকার ধারণা, মূলনীতি, মানবাধিকারের কাঠামো ( জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে), মানবাধিকার রক্ষা ও উন্নয়নে গণমাধ্যমের ভূমিকা, মানবাধিকার অনুসন্ধানী প্রতিবেদন লেখার কলাকৌশল, মানবাধিকার প্রতিবেদন প্রণয়ন বিষয়ে আলোচনা করেন প্রধান আলোচক।

অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেশন সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মামনু অর রশিদ। কর্মশালায় প্রোগ্রাম কো-অডিনেটরের দায়ীত্ব পালন করেন মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরামের ফারজানা ববি নাদিরা। এই কর্মশালায় রাজশাহীতে কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন পত্রিকার ২১ জন সাংবাদিক অংশ নেন। কর্মশালা শেষে বিএমএসএফ এর পক্ষ থেকে অংশগ্রহনকারী সংবাদকর্মীদের হাতে সনদ তুলে দেন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী।

আপনার মন্তব্য