মাসিকের সময় পুরনো কাপড় ব্যবহারে যে স্বাস্থ্যগত সমস্যা

101

নারী ও শিশু ডেস্ক: বাংলাদেশের শতকরা ৮৬ ভাগ নারী মাসিকের সময় স্যানিটারি প্যাড ব্যবহার না করে পুরনো কাপড় বা ন্যাকড়া ব্যবহার করেন৷ ২০১৩ সালের এক জরিপে এই তথ্য উঠে এসেছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগ এবং ওয়াটার এইড সংস্থার সহায়তায় আইসিডিডিআরবি জরিপটি পরিচালনা করে৷

মাসিকের সময় পুরনো কাপড় বা ন্যাকড়া ব্যবহারে কিছু স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দিতে পারে বলে জানিয়েছেন ডা: মাহমুদা আক্তার৷

তিনি বলেন, পিরিয়ডের সময় অপরিষ্কার পুরনো কাপড় ব্যবহার করলে জ্বর, তলপেটে ব্যথা ও মূত্রনালীতে সংক্রমণ হতে পারে৷ এছাড়া জরায়ুতে ইনফেকশন হতে পারে৷ ইনফেকশন দীর্ঘদিন থাকলে পরবর্তিতে সেটি জরায়ুর ক্যানসারে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা থাকে৷

পুরনো, অপরিষ্কার কাপড় ব্যবহারে পিরিয়ডের সময় অতিরিক্ত রক্তপাতের সম্ভাবনাও থাকে বলে জানান এই চিকিৎসক৷ বর্তমানে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এন্ডোগাইনোকলজি বিভাগে অনারারি মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত আছেন৷

তবে দামের কারণে যারা স্যানেটারি প্যাড ব্যবহার করতে পারেন না তারা পুরনো কাপড় ব্যবহার করতে পারেন৷ সেক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় নিশ্চিত করার পরামর্শ দিয়েছেন ডা. আক্তার৷ তিনি বলেন, ব্যবহারের জন্য নেয়া কাপড়টি অবশ্যই পরিষ্কার হতে হবে৷

তারপর ব্যবহারের পর সেটি সাবান ও গরম পানি দিয়ে খুব ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে৷ এরপর ইস্ত্রি করে কাপড়টি জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা করতে হবে৷ এছাড়া কয়েকবার ব্যবহারের পর কাপড়টি ফেলে দিতে হবে৷ নইলে ইনফেকশনের আশঙ্কা থাকবে৷

পুরনো কাপড়ের সমস্যার কথা বলতে গিয়ে ডা. আক্তার বলেন, বাজারে যে প্যাড পাওয়া যায় সেগুলোর শোষণ ক্ষমতা পুরনো কাপড়ের চেয়ে ভালো৷

‘‘একদিনে যেমন দুই-তিনটি প্যাড ব্যবহার করলেই হয়ত চলে যেতে পারে, সেখানে হয়ত আরও বেশি কাপড়ের প্রয়োজন হতে পারে,” বলেন তিনি৷

আপনার মন্তব্য