টি-টোয়েন্টিতে ইতিহাস গড়লো ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা

29

খেলাধূলা ডেস্ক: টি-টোয়েন্টিতে রান সংগ্রহের রেকর্ড গড়েছে ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা।তৃতীয় উইকেটে ডেভিড মালান ও ইয়ন মরগানের গড়া ১৮২ রানের জুটির বিশ্ব রেকর্ড গড়া ম্যাচে ২৪১ রানের পাহাড় গড়েছে ইংলিশরা। টি-টোয়েন্টিতে এটাই ইংল্যান্ডের দলীয় সর্বোচ্চ রান।

শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের নেপিয়ারে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ খেলায় টস হেরে ব্যাটিং করে ইংল্যান্ড। ইংনিসের শুরুতে সাবধানী ব্যাটিং করেও উইকেট ধরে রাখতে পারেননি ওপেনার জনি বেয়ারস্টো। ৩.১ ওভারে দলীয় ১৬ রানে ফেরেন তিনি।

এরপর তিন নম্বর পজিশনে খেলতে নামা ডেভিড মালানকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলেন ওপেনার টম বেনটন। ২০ বলে ৩১ রান করে ফেরেন বেনটন। তার বিদায়ের পর অধিনায়ক ইয়ন মরগানকে সঙ্গে নিয়ে রীতিমতো তাণ্ডব চালান মালান।

তৃতীয় উইকেটে মাত্র ৬২ বল খেলে মালান-মরগানরা গড়েন ১৮২ রানের জুটি। টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের হয়ে দ্রুততম ২১ বলে ফিফটি গড়া মরগান ইনিংস শেষ হওয়ার দুই বল আগে আউট হন। তার আগে ৪১ বলে ৭টি চার ও সমান ছক্কায় ৯১ রান করেন ইংলিশ এ অধিনায়ক।

তবে একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে টি-টোয়েন্টির ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেন ডেভিড মালান। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে নবম ম্যাচে ক্যারিয়ার সেরা ১০৩ রানের ইনিংস খেলেন মালান।

তার শতরানের ইনিংসটি ৫১ বলে ৯টি চার ও ৬টি ছক্কায় সাজানো। ডেভিড মালানের সেঞ্চুরি আর মরগানের ফিফটিতে ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড। টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে নিউজিল্যান্ড।

কলিন মুনরোকে সঙ্গে নিয়ে উদ্বোধনী জুটিতে ৫৪ রান করেন মার্টিন গাপটিল। এরপর ম্যাট পার্কিংসনের লেগ স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে সময়ের ব্যবধানে উইকেট পতনের কারণে ১৬.৫ ওভারে ১৬৫ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন অধিনায়ক টিম সাউদি। ৩০ রান করেন ওপেনার কলিন মুনরো। ২৭ রান করেন অন্য ওপেনার মার্টিন গাপটিল।

ইংল্যান্ডের হয়ে পার্কিংসন ৪ ওভারে ৪৭ রান খরচ করে ৪ উইকেট শিকার করেন। ৭৬ রানের জয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে (২-২) সমতায় ফেরে ইংল্যান্ড।

আপনার মন্তব্য