ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়া হলোনা রশিদের

49

খেলাধুলা ডেস্ক: ভারতের নাগরিকত্ব পাচ্ছিলেন আফগানিস্তানের তারকা লেগ স্পিনার রশিদ খান। তাকে নাগরিকত্ব দিতে চেয়েছিলেন দেশটির পরাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। 

বুধবার ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এ তথ্য জানায়।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গতবছর আইপিএল চলাকালীন সুষমার একটি টুইট ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলো। 

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের আফগান লেগ স্পিনারকে নিয়ে তিনি একটি মজার মন্তব্য করেছিলেন।

সুষমা স্বরাজের প্রয়াণে শোকাহত পুরো ভারত। নরেন্দ্র মোদীর সরকারে পরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে তিনি বেশ জনপ্রিয় ছিলেন। 

মন্ত্রিত্বে থাকাকালীন সুষমা যে কোনও বিষয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেন। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে টুইটারে মত প্রকাশ করতেন তিনি।

গতবছর আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ আর কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যকার ম্যাচে ইডেন গার্ডেন্সে উপস্থিত ছিলেন সুষমা স্বরাজ। 

ওই ম্যাচে লেগ স্পিনার রশিদ খানের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সেই ফাইনালে উঠেছিল হায়দরাবাদ।

 ১০ বলে ৩৪ রান করার পাশাপাশি রশিদ ১৯ রান খরচ করে তিন উইকেট শিকার করেন। দলকে ১৪ রানে জিতিয়ে ট্রফির কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন।

সেই ম্যাচের পরই রশিদ খান ভারতীয় ক্রীড়ামোদিদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হন। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের ক্রিকেটীয় নায়ককে নিয়ে মেতে উঠেছিল ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তরা। 

রশিদ খানের প্রশংসা করে ৩০ হাজার টুইট করা হয়েছিল। রশিদ ভক্ত অনেকেই জানিয়েছিলেন, রশিদকে দেওয়া হোক ভারতের নাগরিকত্ব। 

আর এরপরেই সুষমা স্বরাজ রশিদকে টুইট করে লেখেন, ‘রশিদ আমি সব টুইট দেখেছি। নাগরিকত্ব দেয়ার বিষয়টা পরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ই দেখে।’

সুষমার সেই টুইট দেখে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি আশরাফ গানি ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে নরেন্দ্র মোদীকে ট্যাগ করে টুইট করেছিলেন। 

তিনি লিখেছিলেন, ‘রশিদ আমাদের নায়ক। ওর জন্য আমরা গর্বিত। আমাদের খেলোয়াড়দের নিজেদের নৈপুণ্য প্রদর্শনের একটা পারফরম্যান্সের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য ভারতীয় বন্ধুদের ধন্যবাদ। 

রশিদ মনে করিয়ে দেয় আফগানরা কিসের জন্য সেরা। ও ক্রিকেট বিশ্বের সম্পত্তি। ওকে আমরা ছাড়ছি না।’

আপনার মন্তব্য